রাশেদুল ইসলাম’এর দুইটি ছড়া

শান্ত মামা
আমার মামা, শান্ত মামা, মস্ত বড় বীর,
হাজার রকম বিপদ দেখেও মাথাটা স্থির।
লিকলিকে তার শরীর বটে, মাংসবিহিন বুক,
তবুও যেন বাঘের বেটা, শিকারে উৎসুক ।
ঝাঁকড়া চুলে ভরা মাথা, একটু বোঁচা নাক,
বাঘ শিকারের গন্ধ পেলে, মারেন জোরে হাক।
একদিন এক দলের সাথে বাঘ শিকারে গিয়ে,
এলেন ফিরে মস্ত বড় ইলিশ কাঁধে নিয়ে।
আমার দাদু
আমার দাদু মস্ত বড় গুণীর গুণী জেনো,
দেখলে পথে সবাই তাকে গুরু বলেই মেনো।
হাতে থাকে বেতের লাঠি, মাথায় বড় টাক,
কপালে তার ভাজ পড়েছে, গোঁপ ধরেছে পাক ।
কথায় কথায় চোখের তারা জ্বলজ্বলিয়ে ওঠে,
অতীত কথা কইতে গিয়ে মুখেতে খই ফোটে।
বেয়াদবি দেখলে কারো ইংরেজী বল ছাড়ে,
সালাম দিলে হালকা হেসে, গোঁপের বোঝা নাড়ে।